বোদাে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা ব্যহত হচ্ছে
১৯ নভে '১৬
0 Shares

বোদাে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা ব্যহত হচ্ছে

 বোদাে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা ব্যহত হচ্ছেমোঃ মোফাজ্জল হোসেন বিপুল, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি: নানা অনিয়ম আর ডাক্তার সংকটের মধ্য দিয়ে চলছে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কার্যক্রম। দুর্বল প্রশাসনিক ব্যবস্থা, ডাক্তার ও সেবিকাদের দায়িত্বহীনতার কারণে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে রোগীদের।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সপ্তাহ ধরে নিয়মিত এমবিবিএস ডাক্তার না থাকায়  স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরা।  চিকিৎসারত রোগীদের অভিযোগ গত সোমবার থেকে শনিবার সন্ধ্যা পযর্ন্ত কোন  এমবিবিএস ডাক্তার ছিলনা  স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

উপজেলার একমাত্র সরকারি হাসপাতালটি ধার করা ডাক্তার দিয়ে প্রায় ৩ লাখ লোকের চিকিৎসা সেবা চলছে। প্রতিদিন ৩শ থেকে ৪শ রোগী এই হাসপাতালের বহিঃবিভাগে সেবা নিতে আসেন। বিপুল সংখ্যক রোগীকে চিকিৎসা দিতে হাসপাতালে উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসারদের রীতিমত হিমসিম খেতে হচ্ছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসারত বানিয়াপাড়া গ্রামের রোগী সফিউল ইসলাম (৫৫) জানান, আমি গত মঙ্গলবার চিকিৎসার জন্য এখানে ভর্তি হই কিন্তু এখন পর্যন্ত ডাক্তার আসেনি।

বোদা পৌর সদরের উম্মে হাবীবা জানান, প্রায় ২ ঘন্টা ধরে ডাক্তারের জন্য অপেক্ষা করছি বাচ্চাদের টিকা দেওয়ার জন্য কিন্তু কোন ডাক্তার পাওয়া যাচ্ছে না ।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৪ জন চিকিৎসকের মধ্যে ৩ জন্য অনত্র বদলি হওয়ায় কাগজপত্রে ১১ জন চিকিৎসক থাকলেও গতকাল হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায় ২ জন্য ডাক্তার চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন প্রায় ২শ রোগীকে। তাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, তারা মূলত পঞ্চগড় হাসপাতালের চিকিসক হলেও ডাক্তার সংকটের কারনে এখানে এসে ধারে চিকিৎসা করছেন। ২ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এই হাসপাতালে কর্মরত থাকলেও তারা সপ্তাহে ২দিন দিনাজপুর থেকে এসে স্বাক্ষর করে ঘন্টাখানেক পরে আবার চলে যান।

এ ব্যপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সৈয়দ আহমেদের সাথে যোগাযোগ করতে গত এক সপ্তাহ তাকে পাওয়া যায়নি হাসপাতালে। না প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, গত কয়েক মাস আগে এখানে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা পোষ্টিং হলেও তিনি কয়েক মাসে মাত্র দুএকদিন হাসপাতালে এসে অজ্ঞাত কারনে আর আসেননি।

এ বিষয়ে পঞ্চগড় সিভিল সার্জনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৪ জন ডাক্তারের মধ্যে ৩ জন অনত্র বদলি হয়েছে, বুনিয়াদি প্রশিক্ষনে আছেন ৩ জন চিকিৎসক, মাতৃকালীন ছুটিতে গিয়ে একজন ডাক্তার ২০১০ সাল থেকে অনুপস্থিত, এফসিপিএস পরীক্ষা জন্য ৩ জন্য অনুপস্থিত। তিনি আরো জানান গত কয়েকদিন ধরে আমি নিজেই হাসপাতালে নিয়মিত দায়িত্ব পালন কর রোগীর সেবা দিয়ে আসছি। এসকল অনিয়মের পিছনে হাসপাতালের ব্যবস্থাপনাকে দায়ী করছেন স্থানীয় সচেতন মহল।

Print Friendly, PDF & Email

About dimlanews

Related Posts

Leave a Reply

*

সম্পাদকের বক্তব্যঃ

তিস্তা নিউজ ২৪ ডটকম ভিজিট করুন এবং বিজ্ঞাপন দিন।