17 Jan 2018 - 02:48:10 pm

বোচাগঞ্জে গমের ফলন ভাল হলেও কৃষকের মুখে হাসি নেই

Published on বৃহস্পতিবার, মার্চ ৩০, ২০১৭ at ১:২০ পূর্বাহ্ণ
Print Friendly, PDF & Email

রেজানুল হক রেজু, বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি। দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলায় ২০১৬-২০১৭ ইং মৌসুমে ৬ টি ইউনিয়নে গমের ফলন ভাল হলেও কৃষকের মুখে হাসি নেই। গমের বাজার মূল্য নিয়ে সংশয়ে রয়েছে তারা। বর্তমানে উপজেলার কৃষকেরা গম কাটা মাড়াই নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে।

অপর দিকে দরিদ্র কৃষকরা মৌসুমের শুরুতে প্রতি বস্তা গম (৮০কেজি) ১ হাজার ৪ শত টাকা থেকে ১ হাজার ৫ শত টাকা দরে বিক্রি করে দেওয়ায় খুব একটা লাভবান হতে পারছে না তারা। এ বিষয়ে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায়,ফলন ভাল হলেও উৎপাদিত গম বর্তমান দরে বিক্রি করে কৃষকদের খরচ উঠছেনা। গমের বাজার মূল্য ভাল হলে লাভবান হতেন দরিদ্র গম চাষীরা। ২নং ইশানিয়া ইউনিয়নের খানপুর গ্রামের কৃষক সাদেকুল ইসলাম জানান, ৫একর জমিতে গম আবাদ করেছি ফলন হয়েছে আশানুরুপ।তবে তিনি গমের বাজার মূল্য নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে বলেন,১বস্তা গম ১ হাজার ৪ শ’টাকায় বিক্রি করে কৃষকেরা খুব একটা লাভবান হতে পারবেনা, সরকারী ভাবে প্রতি বস্তা গম ২ হাজার টাকা নির্ধারণ করলে কৃষকেরা লাভবান হতো। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায়,চলতি ২০১৬-২০১৭ মৌসুমে এ উপজেলায় ৫হাজার ৫শত হেক্টর জমিতে গমের আবাদ হয়েছে। গত মৌসুমের চেয়ে যা ৩শ’হেক্টর কম।এ বিষয়ে কৃষিবিদ বাসুদেব রায় জানান,রোগ-বালাই দমন,সঠিক সময়ে ইঁদুর দমনের উদ্যোগ গ্রহন,যথা সময়ে সার,বীজ সরবরাহ এবং উচ্চ ফলনশীল জাতের গমের বীজ অধিক মাত্রায় সম্প্রসারনের ফলে কাঙ্খিত ফলন অর্জিত হয়েছে।তিনি আরোও বলেন,এ বছর উপজেলায় শতাব্দী,প্রদীপ,বারী-২৬.২৮ ও কিছু ৩০ জাতের গম চাষ হয়েছে। গমের বাজার মূল্যের বিষয়ে তিনি বলেন, সবেমাত্র গম তোলা শুরু হয়েছে আশা করছি কৃষকরা ন্যায্যমূল্য পাবে।

Print Friendly, PDF & Email