25 Sep 2017 - 12:22:06 pm

নাটোরে মোবাইল ফোনে নারী কন্ঠের ফাঁদ ॥ ১১ যুবক আটক

Published on রবিবার, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৭ at ৪:৩৪ অপরাহ্ণ
Print Friendly, PDF & Email

নাটোর সংবাদদাতা:  নাটোরের লালপুরে ভুয়া ফেসবুক ও মোবাইল ফোনে নারী কন্ঠের মাধ্যমে প্রতারণাকারি চক্রের ১১ সদস্যকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। লালপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে নাটোরের গোয়েন্দা পুলিশ ও লালপুর থানার পুলিশ শুক্রবার রাতে তাদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা সকলেই ১৮ থেকে ২৫ বছর বয়সী। আটকৃতরা আইটি বিষয়ে দক্ষ এবং এদের মধ্যে দুজন সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়ার রয়েছে।

নাটোরে মোবাইল ফোনে নারী কন্ঠের ফাঁদ ॥ ১১ যুবক আটকশনিবার দুপুরে নাটোরের পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার জানান, এই চক্রটি নাটোরের লালপুর এলাকায় গত দু’বছর ধরে সুন্দরী নারীদের ছবি ব্যবহার করে বিডি কল গার্ল,হট ইমো কল গাল,বিডি কিউট গার্র্ল প্রভৃতি নামে ফেইক ফেইসবুক পেইজ ব্যবহার করে আসছে। ওই পেইজে সুন্দরী নারীদের ছবি দেখিয়ে এবং তাদের নামে বিভিন্ন কমেন্টের মাধ্যমে একে অপরের মোবাইল নম্বর আদান প্রদান করে। নম্বর আদান প্রদানের পর তারা মোবাইল ফোনে ম্যাজিক ভয়েস এর মাধ্যমে কন্ঠস্বর পরিবর্তন করে ফোন সেক্স,ভিডিও সেক্স করে থাকে। পরে তারা দেখা করার কথা বলে ইমোশনাল ব্লাক মেইল করে বিভিন্ন জনের কাছে থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল। এক্ষেত্রে তাদের বেশী টার্গেট ছিল প্রবাসীদের ওপর। বিষয়টি জানতে পেরে লালপুর থানা ও ডিবি পুলিশ অনুসন্ধান চালিয়ে শুক্রবার রাতে লালপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত প্রত্যেকেই আইকোন কোম্পাণীর ফোন ব্যবহার করে। ওই ফোনে ম্যাজিক ভয়েজ এ্যাপ সফওয়ার দেওয়া রয়েছে। এসময় তাদের ব্যবহৃত আইকোন কোম্পাণীর ৭টি ফোন জব্দ করা হয়েছে।লালপুর থানার ওসি আবু ওবায়েদ জানান ,গ্রেফতারকৃতরা তাদের নিজ নিজ এলাকায় ইমো পার্টির সদস্য হিসেবে পরিচিত। সম্প্রতি উপজেলার বিলমারিয়া এলাকার একটি প্রতারনার বিষয়ে অভিযান চালাতে গিয়ে বিষয়টি নজরে আসলে অনুসন্ধান চালানো হয়।

আটককৃতরা হলো তারা হলো লালপুর উপজেলার নাগশোষা গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে মেহেদী হাসান ওরফে আশিক (২৪), একই গ্রামের মর্জেম হোসেনের ছেলে আসাদুল ইসলাম(২৫), মফিজ উদ্দিনের ছেলে নাজমুল হক (১৮), বাবর আলী বাবুর ছেলে সাগর আহম্মেদ (১৮), জালাল উদ্দিন সরদারের ছেলে শিমুল হোসেন (২৫) আব্দুল হান্নান মোল্লার ছেলে জুয়েল রানা (২৪), সামসুল হকের ছেলে শাহাদৌলা ইসলাম ওরফে শাহাদুল্লাহ (২২), মহরকয়া পুর্বপাড়া গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে আসাদুজ্জামান ওরফে লিখন (২২), মহরকয়া থান্দারপাড়া গ্রামের আব্দুল মজিদ থান্দারের ছেলে হাবিবুর রহমান ওরফে জুয়েল (২৫) এবং মহরকয়া ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে মুহাইমিনুল ওরফে আবির (২৪) ও একই গ্রামের জমির উদ্দিনের ছেলে লালন উদ্দিন (২২)।

পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার আরো জানান, এটি একটি নতুন ধারার অপরাধ। ধারনা করা হচ্ছে এধরনের প্রতারনার সাথে অনেকেই জড়িত রয়েছে। এই অপরাধ চক্র সম্পর্কে আরও তথ্য জানতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটককৃতদের রিমান্ড আবেদন জানানো হবে। একই সাথে আরও অনুসন্ধান চালানো হবে এবং এবিষয়ে অভিযান চলমান থাকবে। তাদের বিরুদ্ধে লালপুর থানায় পর্ণোগ্রাফী নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১২ এর (৩) তৎসহ ৪০৬/৪২০/১০৯ পেনাল কোড আাইনে নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email