15 Dec 2017 - 04:34:57 am

নাটোরে খ্রিষ্টান ফাদার ওয়াল্টার নিখোঁজ ॥ উদ্ধারে পুলিশের ব্যাপক তৎপরতা

Published on বুধবার, নভেম্বর ২৯, ২০১৭ at ৩:২৬ অপরাহ্ণ
Print Friendly, PDF & Email

নাটোরে খ্রিষ্টান ফাদার ওয়াল্টার নিখোঁজ ॥ উদ্ধারে পুলিশের ব্যাপক তৎপরতা মো. শহীদুল হক সরকার, নাটোর :নাটোরের বড়াইগ্রামের জোনাইল সেন্ট লুইস উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও জোনাইল ধর্মপল্লীর সহকারী পাল-পুরোহিত ফাদার ওয়াল্টার উইলিয়াম রোজারিও (৪১) আকস্মিকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন। খবর পেয়ে মঙ্গলবার বিকালে নাটোরের পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার ও বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হারুন-অর-রশিদ তার বাড়িতে ছুটে যান। সেখানে গিয়ে তারা নিখোঁজের স্বজনদের সাথে কথা বলে খোঁজ খবর নেন।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ফাদার ওয়াল্টার উইলিয়াম রোজারিও উপজেলার বনপাড়া মিশন মার্কেট থেকে সোমবার বিকাল ৪টার দিকে জোনাইল ধর্মপল্লীর উদ্দেশ্যে রওনা দেয়ার পর থেকে তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। মঙ্গলবার দুপুরে তার নিখোঁজ হওয়ার সংবাদ থানা পুলিশ ও প্রশাসনকে জানালে তাকে উদ্ধারে ব্যাপক তৎপরতা শুরু হয়েছে। পাল-পুরোহিত ওয়াল্টার বনপাড়া পৌর শহরের মিশন পাড়া এলাকার মৃত সিলভেস্টার রোজারিও’র ছেলে। একই মহল্লায় প্রায় এক বছর আগে আলোচিত জঙ্গী হামলায় ব্যবসায়ী সুনীল গোমেজ খুন হন। ইতোঃমধ্যে ঐ হত্যাকান্ডের ঘটনায় জীবিত ও মৃত দায়ী ১২ শীর্ষ জঙ্গী নেতার নামে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেছে পুলিশ।
নিখোঁজ ওয়াল্টারের বড় ভাই প্রেমল রোজারিও জানান, বনপাড়ার একটি প্রেসে বড়দিন উপলক্ষে বিশেষ সংকলন প্রকাশের জন্য কিছু কাজ শেষে তিনি বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে জোনাইলের উদ্দেশ্যে মোটরসাইকেলে রওনা দেন। রাত ৮টার দিকে জোনাইল ধর্মপল্লীর প্রধান পাল-পুরোহিত ফাদার সুব্রত পিউরিফিকেশন মোবাইলে তার ফিরে না যাওয়ার খবর দিলে স্বজনেরা হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজ-খবর নেন। কিন্তু তাকে খুঁজে না পেয়ে মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে থানা পুলিশ, জেলা ডিবি পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনকে জানানো হয়।
নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক সেন্ট লুইস উচ্চ বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক জানান, ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আদগ্রাম এলাকার কয়েকজন প্রাক্তন ছাত্র কিছুদিন আগে প্রধান শিক্ষক ফাদার ওয়াল্টারকে দেখে নিবে বলে হুমকী দিয়ে আসছিলো। এ ঘটনার সাথে তাদের সম্পৃক্ততা থাকতে পারে বলে এসব শিক্ষকদের ধারণা। এদিকে, ফাদার ওয়াল্টারের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় বনপাড়া ধর্মপল্লীসহ উপজেলার ৪টি ধর্মপল্লীবাসীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।
বড়াইগ্রাম থানার ওসি শাহরিয়ার খান জানিয়েছেন, নিখোঁজ ফাদার ওয়াল্টারকে খুঁজে বের করতে পুলিশের পক্ষ থেকেও সর্বাত্বক চেষ্টা চালানো হচ্ছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

 

Print Friendly, PDF & Email