শুভ্রজীৎ বিশ্বাস, মেখলিগঞ্জ, ১৮ জুলাই  : মেখলিগঞ্জের ইতিহাসে প্রথম কোনো সাহিত্যিক তিস্তা নদী কে নিয়ে কাজ শুরু করলেন । মেখলিগঞ্জের কারো কাছে তিনি সন্তান তুল্য কারোও কাছে বা মামণি কারোও কাছে আবার মাসি কিংবা কাকিমা । তিনিই একদিকে যেমন মেখলিগঞ্জের মেয়ে অন্য দিকে আবার মেখলিগঞ্জের পুত্রবধূ ও । তিনিই মেখলিগঞ্জের প্রখ্যাত কবি ও সাহিত্যিক লক্ষী নন্দী ।

বিগত কিছু বছর ধরে যার লেখা দেশে বিদেশে ছড়িয়ে মেখলিগঞ্জ কে এক নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দিয়েছে । তিনি লিখেছেন অজস্র বই। পেয়েছেন অসংখ্য সন্মান। সেই সঙ্গে মেখলিগঞ্জের সাহিত্য অনুরাগী মানুষদের এক করার জন্য সৃষ্টি করেছেন অপরাজিতা অর্পন গোষ্ঠী । সেই কবি ও সাহিত্যিক লক্ষী নন্দীই এখন তিস্তা নদী নিয়ে কাজ শুরু করলেন । একান্ত সাক্ষাৎকারে কবি ও সাহিত্যিক লক্ষী নন্দী জানান যে তিস্তা নদী নিয়ে লেখার ইচ্ছে তার বহুদিনের । তিস্তা নদীর উৎস থেকে মোহনা পর্যন্ত সর্বত্রই তিনি ছুটে বেড়াচ্ছেন এই লেখার জন্য । তিনি তার লেখনীর মাধ্যমে তুলে ধরতে চলেছেন তিস্তা সভ্যতার কথা । এমনকি তিস্তা নদী নিয়ে লেখার জন্য তিনি পাড়ি দিয়েছেন ওপার বাংলায় ও । কথা বলেছেন সাধারণ মানুষদের সঙ্গে । শুনেছেন তিস্তা কে ঘিরে সাধারণ মানুষদের স্বপ্ন আশা প্রত্যাশা সমস্যা সবই । তিস্তা নদী সম্পর্কে কবি ও সাহিত্যিক লক্ষী নন্দীর এই প্রয়াসে অনেক অজানা কথা উঠে আসবে বলেই মনে করছে মেখলিগঞ্জের সাহিত্য অনুরাগী মানুষ জন। উল্লেখ্য সংসার জীবনের সকল দায়িত্ব নিপুণহাতে সমলেও বিগত কিছু বছর ধরে মেখলিগঞ্জের সাহিত্য জগতে এক বিশেষ অবদান রেখে চলেছে কবি ও সাহিত্যিক লক্ষী নন্দীর অপরাজিতা অর্পন গোষ্ঠী । তিস্তা নদী সম্পর্কে কবি ও সাহিত্যিক লক্ষী নন্দীর এই লিখনী যে ভবিষ্যতে মেখলিগঞ্জের অনেককেই অনুপ্রাণিত করবে সেই আশায় বুক বাঁধছে মেখলিগঞ্জের সাহিত্য জগৎ ।

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, প্রকাশক ও সম্পাদক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here