মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর থেকে চলতি আমন মওসুমে কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার লক্ষ্যে লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আগামী ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে এ কার্যক্রম। এরপরেই শুরু হবে ধান ক্রয় অভিযান। গত বুধবার দুপুরে সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে ওই লটারি কার্যক্রমের উদ্বোধন হয়। ওইদিন পৌর এলাকার কৃষকদের নির্বাচিত করতে লটারি করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম গোলাম কিবরিয়া ওই কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. আজমল হোসেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা সোহেল আহমেদ, উপজেলা চালকল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল ইসলামসহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানবৃন্দ ও কৃষকগণ।
উপজেলা খাদ্য দপ্তরের একটি সূত্র জানায়, সরকার চলতি আমন মওসুমে সৈয়দপুর উপজেলায় ৯২৯ জন কৃষকের কাছ থেকে ১ মেট্রিক টন করে ৯২৯ মেট্রিক টন ধান কিনবে। এ লক্ষ্যকে সামনে রেখে উপজেলার আমন ধান আবাদ করা কৃষকের তালিকা চাওয়া হয় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার দপ্তরে।
সূত্রটি জানায়, তাদের দেয়া তালিকা অনুযায়ী দেখা যায় এবার গোটা উপজেলায় ৯ হাজার ৭০ জন কৃষক আমন ধান আবাদ করেছে। ওই সংখ্যার ভিত্তিতে সৈয়দপুর পৌর এলাকায় ৩২৮ জন কৃষক আমন ধান চাষ করেছে। ওই ৩২৮ জন কৃষকের নামের তালিকা বুধবার লটারি বক্সে রাখা হয়। পরে কৃষক ও কর্মকর্তাদের উপস্থিতি প্রকাশ্য লটারি অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৯৬ জন কৃষক নির্বাচিত হয়। এদিকে ইউনিয়নগুলোতে কৃষক নির্বাচনে ২ ডিসেম্বরের মধ্যে সময় বেধে দেন উপজেলা প্রশাসন। ওই সময়ের মধ্যে কামারপুকুর ইউনিয়নে ১৫১ জন কৃষক নির্বাচনে ১ হাজার ৫৫১ জন কৃষক লটারিতে অংশ নিবেন। একইভাবে কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নে ১৭৩ জনের জন্য ১ হাজার ৭৯০ জন, বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নে ১৫০ জনের জন্য ২ হাজার ১৩৩ জন, বোতলাগাড়ী ইউনিয়নে ১৯৯ জনের জন্য ২ হাজার ১৯ জন ও খাতামধুপুর ইউনিয়নে ১৬০ জন কৃষক নির্বাচনের জন্য ১ হাজার ২৪৯ জন কৃষক লটারিতে অংশ নিবেন। নির্বাচিত কৃষক প্রতি কেজি ২৬ টাকা দরে ১ মেট্রিক ধান স্থানীয় খাদ্য গুদামে বিক্রি করতে পারবেন।

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, প্রকাশক ও সম্পাদক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here