মিজানুর রহমান মিলন,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে গরীব চিকিৎসা সেবা’র আয়োজনে ছিন্নমূল শিশুদের মাঝে শীতবস্ত্র ও শিশু সামগ্রী বিতরণ এবং স্বাস্থের ওপর এক সায়েন্টিফিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শুক্রবার (১০ জানুয়ারী) সকাল ১০ টায় শহরের নতুনবাবু পাড়া শহীদ বদিউজ্জামান সড়কে ওব্যাট হেলপার্স হেড অফিস কার্যালয়ে দ্বিতীয়বারের মত স্থানীয় ছিন্নমুল শিশুদের শীতবস্ত্র ও শিশু সামগ্রী বিতরণ এবং শিশুদের স্বাস্থ্য সচেতনার ওপর একটি সায়েন্টেফিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন সৈয়দপুর গরীব চিকিৎসা সেবা সংগঠনের সভাপতি মো. হাফিজুর রহমান।
সংস্থার প্রধান উপদেষ্টা সৈয়দপুর শহরের বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা. শেখ নজরুল ইসলাম।
শিশু স্বাস্থ্যের ওপর সায়েন্টিটিক সেমিনার পরিচালনা করে ডা. মো. রাইসুল কবীর।
অনুষ্ঠানে শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাজাদা আহমেদ।
এতে অন্যান্যদের মধ্যে সিটি আন্দোলনের আহবায়ক সাবেক ছাত্রনেতা তামিম রহমানসহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই শিশু স্বাস্থ্যের ওপর এক সায়েন্টিফিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে শিশুদের সাথে তাদের অভিভাবকদের শিশু স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন করা হয়।
শেষে প্রায় দেড় শত শিশুর মধ্যে শীতবস্ত্র ও শিশু সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রত্যেকটি শিশুকে একটি করে জ্যাকেট, একটি ট্রাউজার, একটি সাবান, ব্রাশ, টুথপেষ্ট, নেইলকাটার,ভেসলিন ও নাস্তা সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
প্রসঙ্গত, সৈয়দপুরের শহরের গরীব চিকিৎসা সেবা একটি সামাজিক সংগঠন। সংগঠনটি বিগত প্রায় ৪ বছর যাবৎ বিভিন্ন ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্পের মাধ্যমে কয়েক হাজার রোগীকে চিকিৎসাসেবা ও ফ্রি ঔষধ পত্র প্রদান করে আসছে। সেই সঙ্গে ৩শ’ জনেরও বেশি দুস্থ, অসহায় রোগীদের দীর্ঘমেয়াদী ফ্রি চিকিৎসা ও ঔষধপত্র প্রদানে সার্বিক সহায়তা দিচ্ছে। এছাড়াও শীত মৌসুমে শীতার্তদের মাঝে কম্বল, বন্যা দূর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। মূলতঃ সংগঠনের সদস্যদের চাঁদার মাধ্যমে সংগৃহিত তহবিল থেকে ওই সব সামাজিক কর্মকান্ড পরিচালনা করা হয়ে থাকে।

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here