মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: বিরামপুর থানা পুলিশ গত দু’দিনে মাদকবিরোধী অভিযানে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও নেশাজাতীয় ইনজেকশন উদ্ধার করেছে। এসময় নারীসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার ও একটি মোটর সাইকেল জব্দ করা হয়েছে। আজ শুক্রবার ও গতকাল বৃহস্পতিবার ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়।এ ঘটনায় থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়েরের পর আসামিদের দিনাজপুর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদে তারা জানতে পারেন একটি মােটর সাইকেলে বিশেষ কায়দায় ফিটিং করে বিক্রি করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে মাদক ব্যবসায়ীরা। সকালে এমন সংবাদ পেয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মনিরুজ্জামান মনিরের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স তাৎক্ষণিকভাবে বিরামপুরের নিশিবা ভাই গর এলাকার তাহের উদ্দিনের বাসায় অভিযান চালায়। এসময় বিশেষ কায়দায় মোটর সাইকেলে ফিটিং করে ফেনসিডিল নিয়ে বের হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল মাদক ব্যবসায়ীরা। পরে ওই বাসা থেকে নারীসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলো-বিরামপুর উপজেলার উত্তর কাটলা এলাকার বেলায়েত হেসেনের পুত্র ফিরোজ হোসেন(২৭),বিজুল মাগুড়া পাড়ার মৃত মোখলেছুর রহমানের পুত্র দিলওয়ার হোসেন (৩২) ও নিশিবা ভাই গর এলাকার তাহের উদ্দিনের স্ত্রী সখিমন বেগম (৫০)। জব্দ করা হয় হিরো গ্লামার ব্রান্ডের সবুজ রঙের মোটর সাইকেল ও উদ্ধার করা হয় ওই মোটর সাইকেলে বিশেষ কায়দায় রাখা ১০০বোতল ফেনসিডিল। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার বিরামপুরের হরিহর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১হাজার ৫০০পিস ভারতীয় নেশাজাতীয় ইনজেকশন ও ২৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে পুলিশ৷
এঘটনায় ওই এলাকার মৃত আব্দুল গফুরের পুত্র মাদক ব্যবসায়ী মজিবর রহমানকে(৫০) গ্রেফতার করে পুলিশ। এসব ঘটনায় থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে।
এ বিষয়ে আজ শুক্রবার বিকেলে জানতে চাইলে বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মনিরুজ্জামান মনির ফেনসিডিল ও নেশাজাতীয় ইনজেকশন উদ্ধার ও মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিরামপুরে মাদক নির্মুলে অভিযান অব্যাহত থাকবে। তিনি মাদকমুক্ত বিরামপুর গড়তে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here