অনলাইন ডেস্ক: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার পাইকারটারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রি সোহাগী খাতুন অপহরণের ১৫ মাস পর আজ বৃহস্পতিবার ভারত থেকে দেশে ফিরেছেন।

বাংলাদেশ ও ভারতের রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে কুটনৈতিক আলোচনার পর আজ বৃহস্পতিবার বিকালে ভারতীয় পুলিশ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থল বন্দর দিয়ে বাংলাদেশী পুলিশের কাছে তাকে হস্তন্তর করেন।

সোহাগী খাতুন জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার পুর্ব সারডুবী গ্রামের সহিদুল ইসলাম ভুট্টুর মেয়ে। ২০১৮ সালের ১৪ অক্টোবর তাকে অপহরণ করে ভারতে পাচার করা হয়।

হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল বলেন, স্কুল ছাত্রী সোহাগী খাতুনকে ২০১৮ সালের ১৪ অক্টোবর স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে অপহরণ করেন ফকিরপাড়া গ্রামের গিরিনের পুত্র প্রদীপসহ কয়েকজন। তাকে অপহরণের পর ভারতে পাচার করা হয়।

২০১৯ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর ভারতের শিলিগুড়ির পায়েল সিনেমা হলের কাছ থেকে তাকে উদ্ধার করে ভারতীয় পুলিশের নিকট হস্তান্তর করেন সোহাগীর পরিবার।

তাকে ফেরত আনতে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে কুটনৈতিক পর্যায়ে দীর্ঘ আলোচনার পর বৃহস্পতিবার বিকালে ভারতীয় পুলিশ বুড়িমারী স্থল বন্দর দিয়ে বাংলাদেশী পুলিশের কাছে তাকে হস্তান্তর করেন। বাংলাদেশী পুলিশ সোহাগী খাতুনকে আদালতে প্রেরণ করবেন বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় একটি অপহরণের মামলা আদালতে বিচারধীন রয়েছে বলে জানান চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল।

বুড়িমারী স্থল বন্দর পুলিশের ইনচার্জ খন্দকার আল মাহমুদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। সূত্র-মানবকন্ঠ

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here