মহিলা সেজে ৭ বছর ধরে বন্ধুর বউরের সাথে পরকীয়া প্রেম: অবশেষে গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক : বন্ধুর বউরের সাথে পরকীয়া প্রেম। বন্ধুর অনুপস্থিতিতে বার বার তাঁর বাড়িতে অভিসার। মহিলার ছদ্মবেশে। এক-দুদিন নয়। দীর্ঘ সাত বছর ধরে এভাবেই চলছিল পরকীয়া। শেষমেষ একদিনের ‘ভুলে’ সামনে এল এই গোপন প্রেমের গল্প।

 

পুণের বাসিন্দা রাজেশ ঘিসুয়াল মেহতা। অভিযোগ, ৪৪ বছরের রাজেশ বন্ধুর অনুপস্থিতির সুযোগ নিয়ে প্রায়ই ফাঁকা বাড়িতে আসত। কেউ যাতে তাকে চিনতে না পারে, সেকারণে মহিলার বেশে সেজে আসত। সেদিনও সালোয়ার কামিজ পরে বন্ধুর বাড়িতে ঢোকে রাজেশ। কিন্তু ঘটনাক্রমে সেদিন বাড়িতে ছিলেন তার বন্ধু। ধরা পড়ে যাওয়ার ভয়ে প্রথমে ঘুমন্ত বন্ধুকে ক্লোরোফর্মের সাহায্যে অজ্ঞান করে দেওয়ার চেষ্টা করে রাজেশ। কিন্তু সেই চেষ্টা ব্যর্থ হলে, নিজেই নিজেকে বেডরুমের মধ্যে আটকে দেয়। তারপর পোশাক পাল্টে সেখান থেকে চম্পট দেয় রাজেশ।

পেশায় বাসনপত্রের ব্যবসায়ী রাজেশ ঘিসুয়ালের ওই বন্ধু পুনের শুক্রয়ার পেঠে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে থাকতেন। পুলিসে অভিযোগ দায়েরের পর শনিবার গ্রেফতার করা হয়েছে রাজেশকে।

সরদার ফজলুল হক :তিস্তা নিউজ ২৪ ডটকম এর প্রকাশিত সংবাদ গুলো পড়ুন এবং মন্তব্য করুন।