• Home »
  • জাতীয় »
  • খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে বিএনপিকে যে পরামর্শ দিলেন ড. কামাল : জানতে পড়ুন
খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে বিএনপিকে যে পরামর্শ দিলেন ড. কামাল : জানতে পড়ুন
২৭ ফেব্রু '১৮
0 Shares

খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে বিএনপিকে যে পরামর্শ দিলেন ড. কামাল : জানতে পড়ুন

অনলাইন ডেস্ক: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কারাবন্দী খালেদা জিয়ার আপিল শুনানি ইস্যুতে বিএনপির মহাসচিব ও আইনজীবীরা গণফোরামের সভাপতি প্রবীণ আইনজীবী ড. কামাল হোসেনের সাথে কথা বলেছেন। বিএনপির আইনজীবীরা ড. কামালের কাছে বেগম জিয়ার মামলার বিষয়ে পরামর্শ নিতে যান। এসময় তিনি বলেন, তিনি ক্রিমিনাল কেস ভালো বোঝেন না। আর এধরনের কেস তিনি দেখেনও না। তবে খালেদা জিয়ার প্রতি তার সহানুভূতি থাকবে। এছাড়া দলের এবং দলের বাইরে অভিজ্ঞ আইনজীবীদের সাথে পরামর্শ করে সমন্বিতভাবে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন ড. কামাল হোসেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র এসব জানিয়েছে।

খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে বিএনপিকে যে পরামর্শ দিলেন ড. কামাল : জানতে পড়ুনআজ মঙ্গলবার সকাল ১১টায় মতিঝিলের টয়োটা টাওয়ারে ড. কামাল হোসেনের ল’ চেম্বারে যান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ব্যারিস্টার আবদুর রেজাক খান, আমিনুল ইসলামসহ কয়েকজন আইনজীবী।

ওই সাক্ষাতের সময় উপস্থিত ছিলেন গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। জানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যমেকে বলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কয়েকজন এসেছিলেন স্যারের কাছে (ড. কামাল হোসেন)। স্যার জানিয়েছেন, তিনি এখন ক্রিমিনাল কেস করেন না। এটা তিনি কম বোঝেন, তবে খালেদা জিয়ার প্রতি তার সহানুভূতি থাকবে। এমনকি স্যার রেজাক খানকে উদ্দেশ করে বলেছেন, আমি যদি কখনো বিপদে পড়ি, তাহলে তো আপনার কাছেই যেতে হবে।

প্রায় ১ ঘণ্টা চেম্বারে অবস্থান করার পর দুপুর ১২টায় বেরিয়ে যান মির্জা ফখরুল ইসলাম ও খালেদা জিয়ার দুই আইনজীবী। এ সময় আইনজীবীরা বলেন, ‘আইনি পরামর্শের জন্য আমরা ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে দেখা করেছি।’

খালেদা জিয়ার আইনজীবী হিসেবে ড. কামাল হোসেনকে চান কি-না? এমন প্রশ্নের জবাবে আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘এ ব্যাপারেও তার সঙ্গে কথা হয়েছে।’

জিয়া অরফানেজ দুর্নীতি মামলায় ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশেষ জজ আদালত খালেদা জিয়াকে ৫ বছর কারাদণ্ড দেয়। একই মামলায় খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানসহ ৬ জনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড এবং প্রত্যেককে ২ কোটি ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

রায় ঘোষণার পর আদালত প্রাঙ্গন থেকেই গ্রেফতার করা হয় বেগম খালেদা জিয়াকে। এরপর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে রাখা হয়েছে তাকে। এরইমধ্যে হাইকোর্টে তার জামিন আবেদন শুনানি শেষ হয়েছে। বিচারিক আদালত থেকে নথি পাওয়ার পর জামিনের ব্যাপারে আদেশ দেবে হাইকোর্ট।

এদিকে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় আগামী ১৩ মার্চ পর্যন্ত খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। একই সাথে ১৩ ও ১৪ মার্চ এই মামলায় আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের দিন ধার্য করা হয়েছে। এ ছাড়া খালেদা জিয়াকে এই মামলায় আদালতে হাজিরের বিষয়ে ১৩ মার্চ শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের আবেদনে বকশিবাজারে আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো: আখতারুজ্জামানের আদালত এ আদেশ দেন।

এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী আবদুর রেজাক খান বলেন, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় যুক্তিতর্কের শুনানির জন্য জজ আদালত আগামী ১৩ ও ১৪ মার্চ পরবর্তী তারিখ ঠিক করে দিয়েছেন। পাশাপাশি খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ ১৩ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

সূত্র: দৈনিক নয়া দিগন্ত

Print Friendly, PDF & Email

About dimlanews

Related Posts

Leave a Reply

*

সম্পাদকের বক্তব্যঃ

তিস্তা নিউজ ২৪ ডটকম ভিজিট করুন এবং বিজ্ঞাপন দিন।