• Home »
  • খেলাধুলা »
  • শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচে অসদাচরণের জন্য শাস্তি দেয়া হয়েছে সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান সোহানের
শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচে অসদাচরণের জন্য শাস্তি দেয়া হয়েছে সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান সোহানের
১৭ মার্চ '১৮

dimlanews

তিস্তা নিউজ ২৪ ডটকম এর প্রকাশিত সংবাদ গুলো পড়ুন এবং মন্তব্য করুন।

0 Shares

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচে অসদাচরণের জন্য শাস্তি দেয়া হয়েছে সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান সোহানের

অনলাইন ডেস্ক: কলম্বোতে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচে অসদাচরণের জন্য শাস্তি দেয়া হয়েছে সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান সোহানের। আলাদা আলাদা ঘটনার জন্য তাদের ২৫ ভাগ জরিমানা করা হয়েছে। আইসিসির আচরণবিধির লেভেল ১ লঙ্ঘনের জন্য উভয় খেলোয়াড়কে একটি করে ডিমেরিট পয়েন্টও দেয়া হয়েছে।শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচে অসদাচরণের জন্য শাস্তি দেয়া হয়েছে সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান সোহানের

খেলার শেষ ওভারের উত্তেজনার জের ধরে তাদের এই শাস্তি পেতে হলো। উল্লেখ্য, উত্তেজনাপূর্ণ ওই ম্যাচে বাংলাদেশ ১ বল বাকি থাকতে জয় পায়। বাংলাদেশ এখন ফাইনালে খেলবে ভারতের বিরুদ্ধে।

কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে শুক্রবারের ম্যাচের শেষ ওভারে নানা ঘটনা ঘটে। আম্পায়ার দ্বিতীয় বাউন্সারকে নো বল কল না করায় সাকিব ক্ষেপে মাহমুদউল্লাহদের মাঠ ছেড়ে চলে আসতে বলেন। ওই সময় পানীয় নিয়ে মাঠে ঢোকা নুরুল হাসান লঙ্কান অধিনায়ক থিসারা পেরেরার সাথে ঝগড়া করেছেন। মাহমুদউল্লাহ ৩ বলে ১২ রান তুলে অসাধারণ জয়ে দলকে ফাইনালে নেয়ার পর ম্যাচশেষেও নুরুল হাসান সোহানের মধ্যে উত্তেজনা ছিল।

আইসিসির আচরণ নীতিমালায় সাকিবের বিরুদ্ধে খেলার স্পিরিট বিরোধী কাজের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। আর সোহান ‘খেলাকে কলঙ্কিত’ করার অভিযোগে দোষী হয়েছেন। ১৯.২ ওভারের সময় সাকিবের আচরণ আম্পায়ারের বিরুদ্ধে গেছে। তার বার্তা নিয়ে মাঠে ঢুকে সোহান ঝামেলা পাকিয়েছেন। প্রকাশ্যে এমন আচরণের বিরোধী আইসিসির আইন। লেভেল ওয়ানের আইন ভাঙার শাস্তি ম্যাচ ফির সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ জরিমানা, সাথে একটি বা দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট। দু’জনই সর্বোচ্চ শাস্তি থেকে বেঁচে গেছেন।

শনিবার সকালে ওই ম্যাচের ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড সাকিব ও সোহানকে অভিযোগে দোষী পান। দুজনই অপরাধ স্বীকার করে নিয়েছেন। তাই আনুষ্ঠানিক শুনানির দরকার পড়েনি। অন ফিল্ড আম্পায়ার রবীন্দ্র উইমালাসিরি ও রুচিরা পালিয়াগুরুগে এবং থার্ড আম্পায়ার রানমোরে মার্টিনেজ ও চতুর্থ আম্পায়ার লিন্ডন হ্যানিবাল এই অভিযোগ আনেন।

সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে ব্রড বলেছেন, ‘শুক্রবারের ঘটনা অপ্রত্যাশিত। খেলোয়াড়দের কাছ থেকে এমন আচরণ কেউ দেখতে চায় না। আমি বুঝি ওটা খেলার একেবারে চূড়ান্ত পর্যায়ের টানটান সময়ে ঘটেছে কিন্তু ওই দুই খেলোয়াড়ের আচরণ অগ্রহণযোগ্য ছিল। তাদের ছাড় দেওয়া যায় না। চতুর্থ আম্পায়ার সাকিব ও ফিল্ডারদের না সামলালে এবং অন ফিল্ড আম্পায়ার নুরুল ও থিসারার মধ্যে না এলে ঘটনা আরো বাজে ঘটতে পারত।’

Print Friendly, PDF & Email

About dimlanews

তিস্তা নিউজ ২৪ ডটকম এর প্রকাশিত সংবাদ গুলো পড়ুন এবং মন্তব্য করুন।

Related Posts

Leave a Reply

*

সম্পাদকের বক্তব্যঃ

তিস্তা নিউজ ২৪ ডটকম ভিজিট করুন এবং বিজ্ঞাপন দিন।