• Home »
  • সারাদেশ »
  • সিলেটের জৈন্তাপুরে জাল টাকাসহ দুই প্রতারককে আটক করেছে জনতা
সিলেটের জৈন্তাপুরে জাল টাকাসহ দুই প্রতারককে আটক করেছে জনতা
২৭ মার্চ '১৮
0 Shares

সিলেটের জৈন্তাপুরে জাল টাকাসহ দুই প্রতারককে আটক করেছে জনতা

 
মোঃ রেজওয়ান করিম সাব্বির,জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধিঃ  জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত বাজার থেকে সিলেটের জাল টাকার নোট সহ ২প্রতারককে আটক কছে সধারন জনতা৷ ইউপি চেরম্যানের মাধ্যমে র‌্যাব-৯ কাছে তাদেরকে হস্তান্তর করা হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানাযায় গত ২৬শে র্মাচ সোমবার বিকাল ৫টায় জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত বাজারে জাল টাকা দিয়ে কয়েক জন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে কিছু মালামাল ক্রয় করে। এবাবে সন্ধ্যা ৭টায় বাজারের বীজ ব্যাবসায়ী আলীম উদ্দিনের কাছ থেকে ১২০টাকা দিয়ে সীমের বীজ ক্রয় করে ১হাজার টাকার ১নোট দেয় প্রতারক শহীদ মিয়া, বীজ ব্যাবসায়ী জাল টাকা ছিনতে না পেরে বাকী টাকা ফেরত দিয়ে দিলে প্রতারক চক্র দুরে সরে পড়ে, একই ভাবে জাল টাকা ব্যবসায়ী আইন উদ্দিন বীজ ব্যাবসায়ী আলীম উদ্দিনের কাছ থেকে ১হাজার টাকার ১নোটের খুচরা নেয়, এসময় বীজ ব্যাবসায়ী এদের গতিবিদি দেখে সন্দেহ জাগে, বিষয়টি আশ পাশের লোক জনকে অবহিত করার সাথে সাথে জাল টাকার ব্যবসায়ীরা সিএনজি অটোরিক্সা দিয়ে পালিয়ে জাবার চেষ্টা কালে জনতা ২প্রতারককে আটক করে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে যায় এবং ইউপি সদস্য শামিম আহমদের জিম্মায় দিয়ে আসে। খবর পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান বাহারুল আলম বাহার পরিষদে আসেন ও থানা পুলিশকে অবহিত করেন। 
সিলেটের জৈন্তাপুরে জাল টাকাসহ দুই প্রতারককে আটক করেছে জনতাএদিকে খবর পেয়ে  র‌্যাব-৯ একটি টিম ইউনিয়ন পরিষদে ছুটে অাসে চেয়ারম্যানের কাছ থেকে দুই জাল টাকার ব্যবসায়ী তাদের জিম্মায় নিয়ে নেয় এ সময় ইউপি সদস্য প্রতারক চক্রের কাছ থেকে জব্ধকরা ২৭টি ১হাজার টাকার নোট ও একটি মোবাইল সেট র‌্যাবের কাছে হস্তান্তর করেন। অাটককৃত জাল টাকার ব্যবসায়ীরা হল নেত্রকোনা জেলার বর্গাপুর উপজেলার কৌলাটি গ্রামের ওহেদ আলীর ছেলে আইন উদ্দিন(২০) ও ময়মনসিংহ জেলার গৌপুর উপজেলার বিশনাতপুর গ্রামের মজিদ মিয়ার ছেলে শহীদ মিয়া(৫০)।
বীজ ব্যাবসায়ী আলীম উদ্দিনের বলেন প্রতারক চক্রটি আমার কাছ থেকে বীজ ক্রয় করে ১হাজার টাকার নোট দিলে টাকাটি জাল হতে পারে বলার পর আমাকে উল্টো দমক দেয় পরে আমি তাহার বাকী টাকা ফেরত দিয়ে দেই এভাবে ৩টি ১হাজার টাকার নোট দিয়ে বিভিন্ন জাতের বীজ ক্রয় করে৷ আমার সন্দেহ হলে আশে-পাশের লোককে জানাই এবং সবার সহযোগিতায় তাদেরকে আটক করি।
ইউপি চেয়ারম্যান বাহারুল আলম বাহার বলেন বাজারের জনতা জাল টাকা ব্যাবসায়িদের আটক করে আমার কাছে নিয়ে আসলে থানা পুলিশকে অবহিত করি এবং পুলিশ ও র‌্যাব-৯ এর কাছে উদ্ধার হওয়া ২৭টি ১হাজার টাকার নোট ও একটি মোবাইল সেটসহ দুই জাল টাকা ব্যাবসায়িদের তাদের হাতে তুলে দেই পরে র‌্যাব তাদের আটক করে নিয়ে যায়।
জানতে চাইলে সিলেট র‌্যাব-৯ এর এ.এস.পি নাহিদ বলেন- খবর পেয়ে সঙ্গীয় ফৌর্স নিয়ে দরবস্ত এসে চেয়ারম্যানের নিকট হতে আমাদের জিম্মায় নিয়ে যাচ্ছি ওদের বেশ কয়েক জন সদস্য সিলেট বিভিন্ন উপজেলায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে এদের জিঞ্জাসাবাদ করে অন্যদের অাটক করতে র‌্যাব-৯ অফিসে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে৷ ২৭ মার্চ দুপুরে তাদেরকে জৈন্তাপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়৷
 
 
 
Print Friendly, PDF & Email

About dimlanews

Related Posts

Leave a Reply

*

সম্পাদকের বক্তব্যঃ

তিস্তা নিউজ ২৪ ডটকম ভিজিট করুন এবং বিজ্ঞাপন দিন।