• Home »
  • বিবিধ »
  • সৈয়দপুরে ভাই-বোনের বিরুদ্ধে ভাইয়ের মামলা
২৮ ফেব্রু '১৬
0 Shares

সৈয়দপুরে ভাই-বোনের বিরুদ্ধে ভাইয়ের মামলা

সৈয়দপুরে ভাই-বোনের বিরুদ্ধে ভাইয়ের মামলামোঃ আলমগীর হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী)প্রতিনিধি: পিতার রেখা যাওয়া বাস্তভিটার জমিতে বোনের অংশ লিখে না দেয়ায় ভাই-বোনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন শফিক বেগ নামের অপর এক ভাই। মামলা নং ১৮৫/১৩।

সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটেছে সৈয়দপুর শহরের বাঁশবাড়ী টালী মসজিদ সংলগ্ন এলাকায়। এদিকে আদালতে মামলা চলমান থাকলেও বোনের ওই জমিটি ভোগ দখলে নেয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসন দ্বারা বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া যায়।

অভিযোগে জানা যায় সৈয়দপুর শহরের বাঁশবাড়ী টালী মসজিদ সংলগ্ন এলাকার সাজ্জাদ বেগ নামের এক ব্যক্তি ৫ ছেলে ও ১ মেয়ে রেখে মৃত্যু বরণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি সন্তানদের জন্য খতিয়ান নং- এসএ ২১০৬, বিএস ৪২০১। দাগ নং- এসএ ৪২৯০, বিএস ২০৬৯০ এর মোট ৬ শতক বাস্তভিটার জমি সমান ভাবে ভাগ করে দেওয়ার কথা বলেন। সাজ্জাদ বেগ মৃত্যুবরণ করার প্রায় ৮ বছর পর ২০১৫ সালের ১০ আগষ্ট জমিটি সমান ভাগে ভাগ করার লক্ষে এলাকায় এক সালিশী বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ওই এলাকার কাউন্সিলর আবিদ হোসেন লাড্ডান, সাবেক সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর সিতারা বেগম ও মহিলা কাউন্সিলর জোসনা বেগমসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। বৈঠকে পিতার জমি সব ভাইদের বুঝিয়ে দেয়া হলেও বোন খাদিজার জমির অংশ রয়ে যায় শফিক নামের এক ভাইয়ের কাছে। পরবর্তীতে ওই বোনের সাংসারিক গরজে অর্থের প্রয়োজন হওয়ায় ভাই শফিককে তার প্রাপ্ত জমির অংশ বিক্রির কথা বললে বোনের প্রাপ্ত জমির কথা অস্বীকার করতঃ কোন প্রকার টাকা পয়সাও দেবে না বলে হুমকি দেয়া হয়। পরে বিষয়টি খাদিজা অপর তার ৪ ভাই শাকিল বেগ (৫৫), শরিফ বেগ (৫১), সাকির বেগ (৪৮) ও শামিম বেগ (৪৫) কে জমি বিক্রির প্রস্তাব দিলে শরিফ বেগ নামের ভাইটি জমিটি ক্রয় করতে রাজি হয়ে মোট ১ লাখ ১০ হাজার টাকায় দলিল মূলে ক্রয় করেন। দলিল মূলে ওই জমির মালিক হওয়ায় গৃহীতা ভাইকে জমিটি বুঝিয়ে দিতে গেলে শফিক নামের ভাইটি বাঁধা সৃষ্টি করে এবং অন্যায় ভাবে স্থানীয় থানা ও আদালতে পর পর তিনটি মামলা দায়ের করেন। এর পরেও ঘটনাটি এলাকাতে সমাধান ও আপোষ মিমাংসা করতে পুনরায় সালিশী বৈঠকের আয়োজন করা হয়। কিন্তু অন্যায় ভাবে মামলা বাজ ভাই শফিক বেগ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও কাউন্সিলরদের তোয়াক্কা না করে বোনকে তার প্রাপ্ত জমি না দিতে পুলিশ দ্বারা বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন করে চলেছেন যা সন্ত্রাশী কর্মকান্ডের সামিল। বাদীর(ভাই) মিথ্যা অভিযোগের প্রেক্ষিতে বোন খাদিজাকে পুলিশ প্রশাসন দ্বারা ভয়ভীতি ও হুমকি না দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আমিরুল ইসলাম জানান, মামলা চলমান থাকলে পুলিশের মাথা ঘামানোর কথা নয়। যদি কেউ হয়রানী ও ভয়ভীতি দিয়ে থাকেন এবং তা প্রমান পাওয়া যায় তাহলে তিনি নিজেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন বলে এক প্রতিবেদককে জানান।

Print Friendly, PDF & Email

About dimlanews

Related Posts

    No posts found.

Leave a Reply

*

সম্পাদকের বক্তব্যঃ

তিস্তা নিউজ ২৪ ডটকম ভিজিট করুন এবং বিজ্ঞাপন দিন।